সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

ওলকপি দিয়ে তেলাপিয়া মাছ

গ্রাম ছাড়া শহরের বাজার গুলোতে খুব কমই ওলকপি দেখতে পাওয়া যায়। অনেকে ধারনা ওলকপি খেলেই গলা চুলকায় কিন্তু ভাল শুকনা ওলকপিতে কখনো গলা চুলকায় না। তাছাড়ও ওলকপি রান্নার কিছু পদ্ধতি আছে। ওলকপি তরকারি রান্না করার আগে ২ দিন আগে থেকে অবশ্যই রোদে বা চুলার পাশে রেখে শুকিয়ে নিতে হবে। তারপর রান্নার সময় গরম পানিতে ভাপ দিয়ে নিতে হয় তাহলে গলা চুলাকানোর আর ভয় থাকে না। ওলকপির যে কোন মাছ দিয়ে রান্না করে খাওয়া যায়। তেলাপিয়া মাছের ওল তরকারি অনেক মজাদার একটা খাবার। উপকরনঃ তেলাপিয়া মাছ ১ কেজি, ওলকপি ১ কেজি, লাল মরিচের গুড়া দেড় চা চামচ, হলুদের গুড়া আধা চা চামচ, আদা বাটা আধা চা চামচ, পেয়াজ বাটা আধা কাপ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, ভাজা জিরার গুড়া পরিমান মত, লবণ ও সয়াবিনে তেল। প্রনালীঃ প্রথমে তেলাপিয়া মাছ ভাল করে কেটে ধুয়ে লবণ ও হলুদের গুড়া মাখিয়ে রাখুন প্রায় ১৫ মিনিট। ওলকপি টুকরা করে কেটে ধুয়ে গরম পানিতে ভাপ দিয়ে নিন। ওলকপি ভাপ দেওয়া হয়ে গেলে পানি ঝরিয়ে অন্য পাত্রে রাখুন। এবার একটি কড়াইয়ে পরিমান মত তেল দিয়ে আঁচ দিতে থাকুন। ভাজা জিরার গুড়া বাদে উপরের সব উপকরন ও সামান্যে পানি দিয়ে মসলা কষিয়ে নিন। মসলা কষানো হয়ে গেলে ভাপ দেওয়া ওলকপি দিয়ে আরও ৫ মিনিট কষিয়ে মাখানো মাছ ঢেলে নেড়ে দিন। ২-৩ মিনিট পর পরিমান মত পানি দিয়ে চুলার আঁচ কমিয়ে ঢেকে দিন। তরকারির ঝোল গাঢ় হয়ে আসলে ভাজা জিরার গুড়া ছিটিয়ে দিন। তারপর চুলা থেকে নামিয়ে মজাদার এই খাবারটি পরিবারে পরিবেশন করুন।
এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

দেশীরান্না, সবজি, মাছ, তেলাপিয়া, ওলকপি