সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Kanchagolla.jpg

ঘরেই তৈরি করুন নাটোরের কাঁচাগোল্লা

নাটোরের কাঁচাগোল্লা  আমাদের দেশের  ১টি  অত্যন্ত জনপ্রিয় মিষ্টি যা শুধু মাত্র নাটোরেই পাওয়া যায়। তাই বলে নাটোর যেতে পারছেন না বলে কাঁচাগোল্লা খাবেন না তা তো আর হয় না। তাই আমরা জেনে নিব কিভাবে ঘরে বসে খুব সহজেই তৈরী করা যায় নাটোরের কাঁচাগোল্লা।

 উপকরন :

১. ঘন দুধ : ১ লিটার

২. চিনি : ১০০গ্রাম ( চাইলে কম বা বেশিও করতে পারেন)

৩. এলাচ গুরা : ১/৪ চা চামচ

৪.  লেবুর রস : ২-৩ টেবিল চামচ

৫. কিশমিশ : সাজানোর জন্য

৬. পেস্তা বাদাম : সাজানোর জন্য

প্রণালী:

প্রথমে ঘন দুধ কে ভালও করে ফুটিয়ে নিয়ে চুলা বন্ধ করে দিন। এবার দুধের মধ্যে লেবুর রস দিয়ে ভালও করে নেড়ে নেড়ে মিশিয়ে ছানা তৈরী করে নিন। এরপর ছানা গুলোকে পাতলা কাপড়ে বেঁধে সব পানি ঝরিয়ে নিন তবে বেশি ঝরঝরে করবেন না। এবার ছানা গুলোকে একটি প্লেটে ঢেলে নিয়ে হাত দিয়ে ভালও করে ডলে বা ময়ান দিয়ে ভিতরের সব গুটিগুলো ভেঙ্গে নিন।

একটি ফ্রাই প্যান অল্প আঁচে গরম করে তাতে ছানা গুলো ঢেলে নাড়তে থাকবেন, কিছুক্ষন পর দেখবেন সব ছানা গলে গিয়েছে তখন চিনি মিশিয়ে আবারও নাড়তে থাকবেন। ছানার পানি শুকিয়ে চিনির রস দেখা দিলে তাতে এলাচের গুঁড়া যোগ করে আর একটু মিশিয়ে কিছুটা ঝোল থাকতেই চুলা বন্ধ করে দিতে হবে। ১৫-২০ মিনিট পর দেখবেন সব রস শুকিয়ে তৈরী হয়ে গেল বিখ্যাত নাটোরের কাঁচাগোল্লা।

বেশিক্ষণ চুলায় রেখে দিলে বা জ্বাল বেশি হলে ছানা গুলো পুনরায় আবার শক্ত হয়ে যাবে তাই অল্প আঁচে এবং কিছুটা ঝোল থাকতে অবশই চুলা থেকে প্যান টি নামিয়ে নিবেন। কিশমিশ ও পেস্তা বাদাম কুচি দিয়ে সাজিয়ে দিন।

মনে রাখবেন, কাঁচাগোল্লা কিন্তু গোল হয় না তবে আপনি চাইলে এতে কিছু মাওয়া এবং অল্প ময়দা মিশিয়ে গোলাকার করে নিতে পারেন। আর পরিবেশন করুন আপনার মনের মত করে।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

natore, kanchagolla, sweets, recipe