সংস্করণ: ২.০১

স্বত্ত্ব ২০১৪ - ২০১৭ কালার টকিঙ লিমিটেড

Turkey-desert-kunafa-recipe.jpg

নিশিতা'স এবার ঈদে চুলাতেই করে ফেলুন তুর্কি মিষ্টান্ন; কুনাফা

কুনাফা একটি তুর্কি খাবার। সাধারনত কুনাফা সেমাই ও চিজ বা বাটার এবং ক্রীম দিয়ে এই মিষ্টান্ন তৈরি করা হয়।

সামনেই আসছে ঈদ। আর গৃহিনীরা তাই এখন থেকে ভাবতে শুরু করে দিয়েছেন এবার ঈদে কোন রেসিপি করবেন, কিভাবে করবেন, কি করলে ভালো হয়। তাদের জন্য আজকের অসাধারণ কুনাফার রেসিপি।

কুনাফা একটি তুর্কি খাবার। সাধারনত কুনাফা সেমাই ও চিজ বা বাটার এবং ক্রীম দিয়ে এই মিষ্টান্ন তৈরি করা হয়। আর কাজটা করতে হয় ওভেনে।

তবে আমি আপনাদের দিচ্ছি এর সহজ রেসিপি যার উপকরণ গুলো পাবেন হাতের কাছে আর বানাতে পারবেন ওভেন ছাড়াই।

উপকরণ:

  • লাচ্ছা সেমাই: ২ প্যাকেট 
  • কনডেন্স মিল্ক: এক টিনের অর্ধেক
  • ঘি: ৫ টেবিল চামচ
  • চিনি (সিরার জন্য): দুই কাপ 

প্রণালী:

  • প্রথমে দুই কাপ চিনি আর দুই কাপ পানি মিলিয়ে সিরা বানিয়ে নিন।
  • স্টিল বা এলোমিনিয়ামের সমান সাইজের দুইটি ট্রে হলে ভালো হয়। না হলে একটি ছড়ানো প্যান নিন। প্যান বা ট্রে তে একটু বাটার বা ঘি ব্রাশ করে নিন।
  • লাচ্ছা সেমাই ভালো করে হাত দিয়ে গুড়া করে নিন। এবার অর্ধেক পরিমান লাচ্ছা সেমাই ভালো করে প্যানে ছড়িয়ে হাত দিয়ে চেপে দিন।
  • কনডেন্স মিল্ক একটা বাটিতে নিয়ে সাথে তিন চামচ ঘি মিলিয়ে নিন।
  • এবার লাচ্ছা সেমাই এর লেয়ারের উপর দুধের লেয়ার চামচ দিয়ে দিয়ে দিন।
  • তার উপর বাকী অর্ধেক লাচ্ছা সেমাই ছড়িয়ে হাত দিয়ে চেপে দিন। (বেশী জোরে চাপবেন না তাহলে দুধ বিরিয়ে আসবে।
  • চুলায় কম আঁচে একটা তাওয়া দিন। তার উপর তিনকোনা হাড়ি পাতিল রাখার স্টিলের স্ট্যান্ড বসিয়ে দিন। তার উপর প্যান বা ট্রে বসিয়ে আরেকটি ট্রে দিয়ে ঢেকে দিন।  (স্টি্লের স্ট্যান্ড না থাকলে তাওয়ার উপর ই প্যান বা ট্রে দিন। এক্ষেত্রে আঁচ মৃদু রাখবেন)
  • ২০ থেকে ২৫ মিনিট পর পুরো জিনিসটাকে উলটে দিন। যেভাবে আমরা পুডিং ঢালি পাতিল থেকে মানে উপুড় করে।
  • এবার ২০ থেকে ২৫ মিনিট এই পাশ ও হালকা লালচে করে ভেঁজে নিন।
  •  হালকা একটু ঠান্ডা হলে চুরি দিয়ে পছন্দ মত আকৃতিতে কেটে নিন।
  • অল্প করে বাদাম কুচি দিতে পারেন।
  • এবার চিনির সিরা ঢেলে দিন টুকরো গুলোর উপর।

ব্যাস, ওভেন ছাড়াই হাতের কাছে থাকা সহজলোভ্য উপকরণ দিয়ে বানানো হয়ে গেল মজাদার মিষ্টান্ন কুনাফা। এবার ঈদে এই রেসিপি টি করে চমকে দিন সবাইকে।


এখানে প্রকাশিত প্রতিটি লেখার স্বত্ত্ব ও দায় লেখক কর্তৃক সংরক্ষিত। আমাদের সম্পাদনা পরিষদ প্রতিনিয়ত চেষ্টা করে এখানে যেন নির্ভুল, মৌলিক এবং গ্রহণযোগ্য বিষয়াদি প্রকাশিত হয়। তারপরও সার্বিক চর্চার উন্নয়নে আপনাদের সহযোগীতা একান্ত কাম্য। যদি কোনো নকল লেখা দেখে থাকেন অথবা কোনো বিষয় আপনার কাছে অগ্রহণযোগ্য মনে হয়ে থাকে, অনুগ্রহ করে আমাদের কাছে বিস্তারিত লিখুন।

eid, recipe, sweet, dessert, turkey, kunafa